হ্যাকারদের কবলে নির্মাতা মিজানুর রহমান মিজান !

অরণ্য শোয়েব| মিজানুর রহমান মিজান বড় পর্দার একজন মেধাবী নির্মাতা |যে কজন নির্মাতা আছেন দেশে তার মধ্যে মিজানুর রহমান মিজান নামটি চলে আসে অনায়াসে। শুধু যে নির্মাতা তা নয়, তিনি গল্পকার বটে। তার রচিত ও নির্মিত সিনেমা প্রকাশের আগেই বেশ সাড়া ফেলেছে । তার নির্মাণের যাদু দিয়ে ইতোমধ্যেই পৌঁছে গিয়েছেন দর্শকের হৃদয়ে। সম্প্রতি তিনি পড়েছেন বিপাকে। কারণ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের এই যুগে তার নিজস্ব ফেসবুক আইডিটি হ্যাকারদের দখলে চলে গিয়েছে। আর এই নিয়ে তিনি এখন চিন্তিত। এখন পাঠক ভাবতে পারেন ফেসবুক আইডি হ্যাক হয়েছে তো এতো চিন্তা করার কি আছেন।
তাদের জন্য বলছি, দেশের প্রথম শ্রেণীর এই নির্মাতার ফেসবুক দিয়েই কাজের ক্ষেত্রে বেশির ভাগ সময় সেলিব্রেটিদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হতো। যার ফলে যে বা যারা আইডিটি হ্যাক করেছে তাতে করে যে কোন ধরনের বাজে কাজ করে ফেলতে পারে হ্যাকররা। আর নিজের জনপ্রিয় নামের সঙ্গে বদনামের ঝুলিটা বড় করতে চাচ্ছেন না তিনি। আর এ নিয়েই বেশ চিন্তিত মিজানুর রহমান মিজান |


নির্মাতার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন,বৃহস্পতিবার রাত ৭-৮ টা যে কোনো এক সময় তার আইডি হ্যাকারদের কবলে চলে যায় | বার চেষ্টা করেও আমার আইডিটিতে লগইন করতে পারছিলাম না প্রবেশ করতে পারছি না। আর এটা নিয়ে বেশ চিন্তিত আমি, কারণ আমার আইডি থেকে যেকোন সেলিব্রেটির সঙ্গে যদি কথা বলে বা কারও সঙ্গে প্রতারণা করে, তাহলে বদনাম আমারই হবে। তাই আমি আমার পরিচিত সকলকে অনুরোধ করব, যাতে করে আমার ফেসবুক আইডি থেকে যে কোন ধরনের মেসেজ বা ছবি যদি প্রকাশ করা হয় বা কেউ যদি চ্যাটিং এ কথা বলতে চায়, তাহলে কেউ যেন কথার উত্তর না দেয়। একাউন্ট রিকোভারির কাজ চলছে। তাছাড়া এ বিষয়ে শনিবার রমনা থানায় একটি সাধারন ডায়েরি করবে বলে জানিয়েছেন নির্মাতা ।

বেশ কিছু আগে ফেসবুক আইডি হ্যাক হয় অভিনেত্রী সাফা কবির.জেসিসা ইসলাম. আনিকা কবির শখ.জাকিয়া বারী মম ,এবং অভিনেতা ওমর সানি ,জোভান ,আব্দুন নূর সজল.নির্মাতা সাগর জাহান সহ অনেক সেলিব্ৰিটি দের| তাহলে কি ব্যাপারটা ঠিক এমনি যে ,হ্যাকারদের টার্গেট নির্মাতা ও অভিনেতা অভিনেত্রীদের ? কিন্তু কোনো ? কি লাভ যারা ফেইসবুক আইডি হ্যাক করে ? পাঠকরা হয়তো এটাই ভাবছে | তাদের কে বলছি, যারা আইডিটি হ্যাক করে তাতে করে যে কোন ধরনের বাজে কাজ করে ফেলতে পারে হ্যাকররা। যে আইডি গুলো হ্যাক হয় পরবর্তীতে সেই সব ফেসবুক আইডির নাম পাসওয়ার্ড সব তথ্য বদলে নতুন করে আইডির জন্ম দেয়, পরে সেইসব বেশি ফলোআর ফেসবুক আইডি গুলো চড়াও দামে বিক্রি হয় | পাঠকরা ভাবছে এ ও সম্ভব ? হ্যা এইটাই হচ্ছে যেমন দুইলক্ষ ফেসবুকে ফলোয়ার্স থাকলে সেই আইডির দাম 20 ,০০০.টাকা মতো দাম উঠতে পারে | এক লক্ষ পঞ্চাশ হাজার ফলোয়ার্স হলে দাম হবে ১৫০০০ টাকার মতো, আর এক লক্ষ ফলোয়ার্স এবং পঞ্চাশ হাজার এর আইডি গুলো বিক্রি হয় ১০০০০-৯০০০ টাকার মতো | এই আইডি আপনি সব জায়গায় বা কোনো দোকানে গিয়ে কিনতে পারবেন না ,এর জন্য ও লাগবে ফেসবুক| ফেসবুকে বিভিন্ন গ্রূপ আছে সেখানে ফেসবুক একাউন্ট থেকে শুরু করে ফেসবুক পেইজ বেশি লাইক দরকার ? গ্রূপ থেকে ফেসবুক হ্যাকার আপনি হায়ার করতে পারবেন ,আরো অনেক কিছু ইত্যাদি আপনি সেখানে পাবেন |

Check Also

অপুর্ব কে রেখে অন্তুর ভালোবাসায় মেহজাবিন?

মিডিয়া ভূবন২৪- আগামী ফেব্রুয়ারী বিশ্ব ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে  ভালোবাসার নাটক নির্মাণ করেছেন বি ইউ শুভ …