বৈশাখী টিভিতে নতুন ধারাবাহিক ‘শান্তিপুরীতে অশান্তি’

মঙ্গলবার (২০ নভেম্বর) থেকে বৈশাখী টিভিতে শুরু হবে পথিক প্রডাকশন হাউজের প্রযোজনায় ধারাবাহিক নাটক ‘শান্তিপুরীতে অশান্তি। মুক্তনীলের রচনায় রয়েল টাইগার নিবেদিত এ নাটকটি পরিচালনা করেছেন সকাল আহমেদ। নাটকটি নির্বাহী প্রযোজক তুহিন বড়ুয়া। নাটকে অভিনয় করেছেন রহমত আলী, ওয়াহিদা মল্লিক জলি, শবনম ফারিয়া, অর্ষা, তানজিকা আমিন, কাজল সূবর্ণ, আফরান নিশো, আরমান পারভেজ মুরাদ, ইউসুফ রাসেল, অধরা, রেহেনা রাখি, হিমে হাফিজ, তুষার খান. কায়েস চৌধুরী, এস এম মোহসীন, খলিলুর রহমান কাদেরী, সাইকা আহমেদ, অনুভব মাহবুব প্রমুখ। নাটকের গল্প আবর্তিত হয়েছে একটি বাড়িকে ঘিরে। বাড়ীর নাম শান্তিপুরী। গৃহকর্তা হক সাহেব। গৃহকর্ত্রী আয়েশা হক। বিত্ত-বৈভবের কমতি নাই। পঞ্চাশ বছরের দাম্পত্য জীবন। ছেলে-মেয়েরা সব প্রবাসী। আছেন দুই টোনা-টুনী। কিন্তু সংসার জীবনের এতগুলো বছর পার করে এসে সম্প্রতি তাঁদের সর্ম্পক সাপে-নেউলে। প্রতিটি ব্যাপারেই একে অপরের প্রতিপক্ষ। বাড়ির অন্য লোকেরা কাহিল তাঁদের দুজনের বিবাদ মেটাতে। ভাড়াটিয়া যারা ছিল তারাও একসময় স্বামী-স্ত্রীর এই কুরুক্ষেত্র ছেড়ে পালিয়েছে। অতঃপর নিজের দল ভারী করতে হক সাহেব তার বাড়ির একটা অংশ কিছু ব্যাচেলর ছেলের কাছে ভাড়া দিয়েছেন। একদম তার মনের মত ছেলেগুলো। সে যা বলে তাই শোনে।এদের নিয়ে হক সাহেবের বেশ ভালোই দিন কাটছে। সহধর্মিনী আয়েশা যাতে বিরক্ত হয়, তার সুখ দেখে যাতে হিংসা হয়, তাঁকে যেন শায়েস্তা করা যায়, সে জন্য হক সাহেবের নানা আয়োজন; নানান পরিকল্পনা। একটার পর একটার প্রয়োগ চলছে…চলছে নতুন নতুন নিরীক্ষা। ত্যাক্ত-বিরক্ত, অসহায় আয়শা ভেতরে ভেতরে জ্বলতে থাকে। এই ব্যাচেলর ছেলেগুলো একেকটা যেন হক সাহেবের চেয়েও বড় হারামজাদা। ভাবখানা এমন যেন হক সাহেবই এই বাড়ীর সব, মিসেস হক একটা ফেলনা। ছেলেগুলোর আচরন দেখলে মনে হয় ওরাই বাড়ীর মালিক আর মিসেস আয়েশাই এই বাড়ির ভাড়াটিয়া। কিন্তু আর কত সহ্য করা যায়! দিন দিন ওদের দৌরাত্ম বেড়েই চলেছে। প্রতিনিয়ত ত্যাক্ত-বিরক্ত আয়েশা স্বামীকে বলেন, ছেলেগুলোকে তাড়াতে। কিন্তু কিসের কি, হক সাহেবতো এটাই চেয়েছিলেন। এই জন্যইতো ব্যাচেলরদের বাড়ি ভাড়া দেওয়া; এই জন্যইতো এত আয়োজন। মনে মনে বেশ পুলকিত হক সাহেব। কিন্তু আয়েশাও ছেড়ে দেয়ার মানুষ নন। তিনিও মনে মনে পরিকল্পনা করতে থাকেন কি করে এর একটা বদলা নেওয়া যায়। অতঃপর আয়েশাও বাড়ির একটা অংশ কিছু ব্যাচেলর মেয়ের কাছে ভাড়া দেন। তুখোড় সব মেয়ে। আয়েশা যেমন চেয়েছিলেন ঠিক তেমনী। আয়েশা আদর করে নাম দিয়েছেন ‘বাঘের বাচ্চা সব’। শুরু হয়ে যায় খেলা। হক বনাম আয়েশা; দুজনের দুটো শক্তিশালী দল দাড়িয়ে যায়। সারাদিন চলছে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করার নানা রকম পরিকল্পনা এবং প্রয়োগ। এভাবেই চলতে থাকে। শান্তিপুরী পরিণত হয় অশান্তিপুরীতে, পরিণত হয় মহা রণাঙ্গণে। নাটকটি প্রচার হবে প্রতি মঙ্গল, বুধ ও বৃহস্পতিবার রাত ৮ টায় বৈশাখী টেলিভিশনে।

 

Check Also

রেদওয়ান রনি”টাইম ট্রাভেল এক্সপেরিএন্স”

মিডিয়া ভূবন২৪- দর্শক একই সময়ে পর্দায় ৭১ এর বিজয়  ও ১৮ সালের সাফল্যের গল্প দেখবে একই …