কক্সবাজারে নাটকের শুটিং জটিলতার সমাধান

 কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে শুটিং করতে গুনতে হচ্ছে বাড়তি ফি, সঙ্গে অনুমোদন নিয়ে নানা জটিলতায় পড়ছেন নির্মাতা ও প্রযোজকরা। এ নিয়ে প্রতিবাদে মুখর হয়েছিলেন শিল্পী ও নির্মাতারা।
এসব বিষয় নিয়ে গতকাল কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের সঙ্গে ডিরেক্টরস গিল্ডের একটি প্রতিনিধি দল সাক্ষাৎ করেন। পরে রাতে ডিরেক্টরস গিল্ডের সাধারণ সম্পাদক এস এ হক অলিক জানান যে, কক্সবাজারে শুটিং নিয়ে সৃষ্ট জটিলতার সমাধান হয়েছে। তিনি জানান, প্রতিনিধি দলের সঙ্গে কক্সবাজার প্রশাসনের আলোচনার প্রেক্ষিতে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে যে-
* এখন থেকে অনলাইনের মাধ্যমে ঘরে বসেই শুটিং এর অনুমতির আবেদন করা যাবে। যা আগামী ১৫ মে থেকে কার্যকর হবে এবং জেলা প্রশাসকের ওয়েব সাইটে পাওয়া যাবে।
* শুটিংয়ের আবেদনের প্রেক্ষিতে সর্বোচ্চ ৭২ ঘন্টার মধ্যে কর্তৃপক্ষ অনলাইনে অনুমোদন প্রদান করবেন।
* প্রতিদিনের শুটিং ফি ১০ হাজার টাকা থেকে ২ হাজার টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।
* এই ফি অনলাইন আবেদন ফর্মে উল্লেখিত ব্যাংক একাউন্টে যে কোন শাখায় জমা দেওয়া যাবে। এর জন্য কক্সবাজারে আসার প্রয়োজন হবে না।
* আবেদন ফর্মে ডিরেক্টরস গিল্ডের সদস্য নম্বর প্রধান বাধ্যতামূলক।
* শুটিং লোকেশনে ডিরেক্টরস গিল্ডের আইডি কার্ড রাখা বাধ্যতামূলক এবং আইডি কার্ড প্রদর্শন করলে প্রশাসন তাকে শুটিং এ পূর্ন সহযোগিতা করবেন।
এসএ হক অলিক আরো জানান, এই শুটিং অনুমোদন কেবল ডিরেক্টরস গিল্ডের সদস্যদের নাটক নির্মানের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে। হালনাগাদ সদস্য তালিকা প্রতিনিধি দল জেলা প্রশাসকের হাতে হস্তান্তর করা হয়। সভা শেষে টেলিভিশন শিল্প মাধ্যমের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসক এবং উপস্থিত কর্মকর্তাবৃন্দকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানানো হয়।

Check Also

রেদওয়ান রনি”টাইম ট্রাভেল এক্সপেরিএন্স”

মিডিয়া ভূবন২৪- দর্শক একই সময়ে পর্দায় ৭১ এর বিজয়  ও ১৮ সালের সাফল্যের গল্প দেখবে একই …